পাখিদের মৃত্যুপুরী জাটিঙ্গা, রহস্যময় পর্যটন কেন্দ্র Reviewed by Momizat on . ‘জাটিঙ্গা’ ভারতের একটি দর্শনীয় স্থানের নাম। প্রতি বছর অসংখ্য পর্যটক এই স্থানটিতে আসেন। কি রয়েছে এখানে! ভারতের একটি গ্রামে পর্যটক আকর্ষণ... প্রতি বছর সেপ্টেম্বর ‘জাটিঙ্গা’ ভারতের একটি দর্শনীয় স্থানের নাম। প্রতি বছর অসংখ্য পর্যটক এই স্থানটিতে আসেন। কি রয়েছে এখানে! ভারতের একটি গ্রামে পর্যটক আকর্ষণ... প্রতি বছর সেপ্টেম্বর Rating: 0
You Are Here: Home » পর্যটন কেন্দ্রের খবর » পাখিদের মৃত্যুপুরী জাটিঙ্গা, রহস্যময় পর্যটন কেন্দ্র

পাখিদের মৃত্যুপুরী জাটিঙ্গা, রহস্যময় পর্যটন কেন্দ্র

Amazing Story‘জাটিঙ্গা’ ভারতের একটি দর্শনীয় স্থানের নাম। প্রতি বছর অসংখ্য পর্যটক এই স্থানটিতে আসেন। কি রয়েছে এখানে! ভারতের একটি গ্রামে পর্যটক আকর্ষণ…

প্রতি বছর সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বর মাসে সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত ঝাঁকে ঝাঁকে পাখিরা এসে আগুনের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে আত্নহত্যা করে। বিস্ময়কর ও রহস্যময় এই ঘটনা নিজের চোখে একপলক দেখার জন্যই এখানে পর্যটকদের আগমন ঘটে।যা  জাটিঙ্গাকে করে তুলেছে রহস্যময় এক পর্যটন কেন্দ্র।

একদা কিছু নাগা পরিবার জুম চাষের জন্য জাটিঙ্গা আসে। একদিন তারা বুনো প্রাণীদের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য আগুন জ্বালালে দেখতে পায় আগুন লক্ষ্য করে ঝাঁক বেঁধে নেমে আসছে একই জাতের পাখি। তখন ওরা ভেবেছিল এটা শয়তানের কাজ। পর পর কয়েক রাত এ ঘটনার পুনরাবৃতি হলে নাগারা সেখান থেকে চলে যায়।

বছরের অন্য কোনো সময় এই ধরনের ঘটনা ঘটে না। শুধুমাত্র প্রতি বছর আগস্ট থেকে অক্টেবর এর মাঝে অমাবস্যার রাত, টিপটিপে বৃষ্টি, গাঢ় কুয়াশা আর বাতাসের প্রবাহ এ কয়টির সমন্বয় ঘটলেই আলোর উৎসের দিকে ছুটে যাওয়া এদের অভ্যাস। যদি কেউ কোনো খোলা জায়গায় আগুন জ্বালায় তাহলেই ঝাঁকে ঝাঁকে পাখি এসে তার উপর ঝাঁপিয়ে পড়বে। আগুনের কোনো উৎস না দেখলে কিন্তু তারা এরকমটি করে না। বছরের অন্য কোনো সময় খোলা জায়গায় আগুন জ্বালালেও পাখিরা এসে ঝাঁপ দেয় না।

তাহলে কি এই রহস্য??? এ রহস্যের টানেই ছুটে আসে পর্যটকদল অদ্ভুত রহস্যময় এ গ্রাম জাটিঙ্গায়।

ভারতের আসামের উত্তর কাছাড় জেলার সদর শহর হাফলং থেকে ৯ কিলোমিটার দূরে জাটিঙ্গা অবস্থিত।

© 2011-2013 Powered By BDTRAVELNEWS.COM

Read previous post:
টেকনাফ ইউএনও এখন সেন্টমার্টিন: চলছে রাষ্ট্রপতির সফর প্রস্তুতি

সেন্টমার্টিনদ্বীপে রাষ্ট্রপতির সফর সফল করতে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শাহ্ মোজাহিদ উদ্দিন এখন সেন্টমার্টিন দ্বীপে অবস্থান করছেন।  টেকনাফ উপজেলা...

Close
Scroll to top